Home » জাতীয় » নির্বাচনী প্রচারণায় ও মাজার জিয়ারত করতে সিলেটের পথে খালেদা

নির্বাচনী প্রচারণায় ও মাজার জিয়ারত করতে সিলেটের পথে খালেদা

 

 : হযরত শাহজালাল (রঃ) ও হযরত শাহ পরান (রঃ) এর মাজার জিয়ারত করতে আজ সোমবার সিলেট যাচ্ছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি সেখানে কোনো নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিবেন না বলে জানিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।
আজ সোমবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে গুলশানে খালেদা জিয়ার বাড়ির সামনে থেকে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান, শামসুদ্দিন দিদারসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

সোমবার সকাল সোয়া ৯টায় গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’ থেকে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর যাত্রা শুরু করে।
পাঁচ বছর পর সিলেটে এই সফরে খালেদা জিয়ার সঙ্গী হয়েছেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমর, বরকতউল্লাহ বুলু, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল।
যাত্রা শুরুর আগে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, সিলেট পৌঁছে বিকালে দেশনেত্রী খালেদা জিয়া দুই মহান সুফী সাধকের মাজার জিয়ারত করবেন। তার এই সফর শুধুমাত্র জিয়ারতের উদ্দেশ্যে।
তিনি বলেন, ‘এক বছর আগে নির্বাচনী প্রচারণার কোনো সুযোগ নেই। এখনও লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি হয়নি। এখনও সমানভাবে সবার জন্য পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। এই নির্বাচনী প্রচারণার কোনো অর্থ নেই।’
বিএনপির এই নেতা বলেন, ‌‘এক জন সাবেক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সিলেট সফরে খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্ব সরকারের।’
এ সময় আমীর খসরু অভিযোগ করে বলেন, সব দলের জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করা না করে ক্ষমতাসীন দল ও তাদের শরিকরা ‘এককভাবে’ নির্বাচনী প্রচার শুরু করেছে।
এর আগে গত ৩১ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ১ ফেব্রুয়ারি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ সিলেটে গিয়ে মাজার জিয়ারত করে জনসভায় যোগ দেওয়ার মাধ্যমে প্রাকনির্বাচনী প্রচার শুরু করেন।
এদিকে জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার আগে বিএনপি নেত্রীর এই সফরে জনসভার মত কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি রাখা হয়নি। জিয়ারত শেষে রাতেই তার ঢাকা ফেরার কথা রয়েছে।
খালেদা জিয়া সর্বশেষ সিলেটে গিয়েছিলেন দশম সংসদ নির্বাচনের আগে ২০১৩ সালের ৪ অক্টোবর। সে সময় আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে ২০ দলীয় জোটের জনসভায় বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসন, যদিও ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির ভোট বিএনপি বর্জন করে।
আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া এতিমখানা দুর্নীতি মামলার রায়ে দোষী সাব্যস্ত হলে খালেদা জিয়ার যাবজ্জীবন সাজা হতে পারে। সে ক্ষেত্রে তার আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়েও অনিশ্চয়তা তৈরি হতে পারে।

সম্পাদনায় : টি এম তুহিন