Home » জাতীয় » প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করলেন তুরস্কের ফার্স্টলেডি
????????????????????????????????????

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করলেন তুরস্কের ফার্স্টলেডি

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেছেন তুরস্কের ফার্স্টলেডি এমিনি এরদোয়ান।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের উদ্দেশ্যে গণভবন পৌঁছান ফার্স্টলেডি।

এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত ক্যাভুফোগলু।

এর আগে বিকেল ৩টার দিকে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন এমিনি এরদোয়ান।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের সময় বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলমসহ ৬০ সদস্যের প্রতিনিধি দল উপস্থিত ছিল।

বিপদের মুহূর্তে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় ও মানবিক সাহায্য দেয়ায় বাংলাদেশের প্রতি ধন্যবাদ জানিছেন তুরস্কের ফার্স্টলেডি।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে বিকেলে ৫টার দিকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন এমিনি এরদোয়ান।

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের দেখতে তিনি বাংলাদেশ সফর করছেন।

বৃহস্পতিবার ভোরে রাজধানীর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এমিনি এরদোয়ানকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

ঢাকায় পৌঁছে সকালেই রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের লক্ষ্যে টেকনাফের উদ্দেশে রওনা দেন তিনি।

গেলো ২৪ আগস্ট মধ্যরাতের পর রোহিঙ্গা যোদ্ধারা অন্তত ২৫টি পুলিশ স্টেশন ও একটি সেনাক্যাম্পে প্রবেশের চেষ্টা করলে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়।

এরপর রোহিঙ্গা দমনে হেলিকপ্টার গানশিপের ব্যাপক ব্যবহার করেছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। এতে মিয়ানমার সরকারের হিসাবে ৪ শতাধিক রোহিঙ্গা মুসলিম নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষে আহত শত শত রোহিঙ্গা নারী, পুরুষ ও শিশু বাংলাদেশে এসেছেন।

অবশ্য চলতি মাসের শুরুতে রাখাইনে সেনা মোতায়েন করে মিয়ানমার সরকার। ঘোষণা দেয় অভিযানের। এরই মধ্যে গ্রামের পর গ্রাম রোহিঙ্গাদের অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। বর্মি সেনাদের গণহত্যার বদলা নিতেই রোহিঙ্গা স্বাধীনতাকামীরা পুলিশ পোস্টে হামলা ও একটি সেনাঘাঁটিতে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করে।

ইউএনএইচসিআরের তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার পর্যন্ত দেড় লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

এসজে