Home » অপরাধ » মেয়েকে ২০০০ টাকায় নিষিদ্ধ পল্লিতে বিক্রি করলেন বাবা

মেয়েকে ২০০০ টাকায় নিষিদ্ধ পল্লিতে বিক্রি করলেন বাবা

নিউজ ডেস্ক: টাকার বিনিময়ে ১৫ বছরের মেয়েকে বিক্রি করল বাবা। ভারতের বেহালার ১১৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ওই কিশোরী। জানা গেছে, মাত্র ২০০০ টাকার বিনিময়ে টালিগঞ্জের নিষিদ্ধ পল্লিতে ওই কিশোরীকে তার বাবা গোপাল মাইতি বিক্রি করে দেয়। তার আগে নতুন জুতা কিনার জন্য বাবার সঙ্গে বেরিয়েছিল ওই মেয়ে।

এই খবর পাওয়া মাত্রই নাবালিকার দাদু ওই নিষিদ্ধপল্লীতে গিয়ে তাকে উদ্ধার করেন। কিশোরীকে উদ্ধার করার পরে বাবা গোপাল মাইতির বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ জানান তিনি। এর পরেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে বেহালা থানার পুলিশ।

তার পরিবার জানিয়েছে, সকালে জুতো কিনে দেওয়ার নাম করে মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে বেরোয় গোপাল মাইতি। তখনই টালিগঞ্জের নিষিদ্ধ পল্লির একটি বাড়িতে মেয়েকে নিয়ে যায় সে। তার পর এক ব্যক্তির কাছ থেকে ২০০০ টাকা নেয়। মেয়েকে সেই বাড়িতে কিছুক্ষণের জন্য অপেক্ষা করতে বলে সেখান থেকে চলে যায় গোপাল মাইতি।

এর পরে, ওই ব্যক্তি কিশোরীটিকে হেনস্থা করার চেষ্টা করলে, সে ঘর ছেড়ে কাঁদতে কাঁদতে বেরিয়ে পড়ে। এলাকায় উপস্থিত মানুষ তখন মেয়েটির থেকে পুরো ঘটনা শোনেন এবং ফোন করে মেয়েটির দাদুকে খবর দেন। এলাকার মানুষের থেকে পুরো ঘটনা ফোনে শোনার পরেই দাদু এসে নাতনিকে উদ্ধার করে থানায় ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। এ ঘটনায় পুলিশ গোপাল মাইতিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।